ঢাকাSunday , 17 October 2021
  1. Engineering
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া ও দূর্যোগ
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন
  9. কবিতা
  10. কুরআন/সূরা
  11. কৃষি
  12. কোভিড-১৯
  13. খেলাধুলা
  14. গনমাধ্যম
  15. জব
বিজ্ঞাপনঃ আপনি স্ববলম্বি হতে চান? ১০০% নিশ্চয়তায় দৈনিক আয় করতে telegram এ যোগাযোগ করুন, +85295063265 @krakenvip01' বা, @kraken_Asst     
আজকের সর্বশেষ সবখবর

যাও তবে ক্ষমা করে দিলাম: প্রিয় প্রাক্তনকে ক্ষমা

bd-tjprotidin
October 17, 2021 3:24 pm
Link Copied!

নিউজ ডেস্ক :

আজ ১৭ অক্টোবর, প্রাক্তনকে ক্ষমা করে দেওয়ার দিন। ২০১৮ সালে যাত্রা শুরু হয় বিচিত্র এ দিবসটির। প্রিয় একজন মানুষ, যাকে আপনি অনেক ভালোবাসেন। পারিবারিক বা ষড়যন্ত্র বা ভুলবোঝাবুঝি বা অর্থ সংকটে কেউ কাউকে সুখের আশায় বা যে কোনো কারণেই দূরত্ব এবং এক সময় সব কিছুর অবসান হয়েছে। আজ সেই প্রাক্তনকে ক্ষমা করার দিবস। প্রতিটি প্রেমিক বা প্রিয় যুগল যুগের পর যুগ একই ছাঁদের নিচে বসবাস করে সুখে দুঃখে পাশে থাকে। ছোট খাটো খুনসুটি হয়। সব মিলিয়ে একটি ভালোবাসার সাময়িক দূরত্বের অবসানে ক্ষমা করে নতুনের উদ্দামতায় শুরু। অনেকই আছে সুখে থাকে, দূদর্শা দেখলেই লেজ গুটিয়ে পালায়। এতে একজন অন্যজনের উপর অবিশ্বাস ও অভিমান নানা রকমই মনে হয়। প্রকৃত পক্ষে প্রকৃত প্রেম সৃষ্টিকর্তা বা মানুষ যেই হোক না কেনো সময় অসময়ে খুনসুটি হলেও কঠোর আঘাত বা ছেড়ে যায় না। যদিও যায় তবে হয়তো কখনো ফেরে আবার ফেরেও না। রাখা সৃতি আর স্বপ্ন অপেক্ষায়।

মন ভালো,  ঠিক সময়ে অফিসে যায়? ঠিকমতো খায় সকালবেলা?’ কবি জয় গোস্বামীর কবিতার মতো প্রাক্তনের প্রতি এমন অভিমান মেশানো জিজ্ঞাসা থাকে অনেকের। কিন্তু অধিকাংশেরই থাকে হাজারটা অভিযোগ, প্রবল ঘৃণা ও ক্ষমাহীন ক্ষোভ। হয়তো এই সব অনুভূতির পেছনের কারণগুলো যথার্থই যৌক্তিক। কিন্তু তা বলে অনুভূতিগুলো সারা জীবন ধরে পুষে রাখারও কি যৌক্তিক কারণ থাকে সব সময়? পুষে রাখা মানেই তো নিরন্তর মানসিক পীড়ন। চলে যাওয়া মানুষটিকে নিজের ভেতর ঘৃণায় বাঁচিয়ে রাখা শুধু। কেবলই যেন বুকের ওপর অনড় জগদ্দল পাথর চাপিয়ে রাখা। তার চেয়ে প্রাক্তনকে নিঃশর্তে ক্ষমা করে দিলে কেমন হয়! অসহনীয় অতীতকে ভুলে যাওয়ার ক্ষেত্রে এর চেয়ে সহজ পথ বোধ হয় কমই আছে।

আজ ১৭ অক্টোবর, প্রাক্তনকে ক্ষমা করে দেওয়ার দিন। ২০১৮ সালের ১৭ অক্টোবর যাত্রা শুরু হয় বিচিত্র দিবসটির। চলে গেছে যে মানুষ ফেরার আকুতিকে উপেক্ষা করে, যেতে দিন তাকে। প্রাক্তনকে ক্ষমা করে দেওয়ার এই দিবসে আরেকবার মনে করুন। যা আছে অভিযোগ, ক্ষোভ কিংবা ঘৃণা—সব ভুলে গিয়ে বলে দিতে পারেন, যাও, তোমাকে মাফ করে দিলাম। আর ভাঙামন জোড়া দিলে সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ  তাকে জান্নাত দান করবে। প্রকৃত মানুষ কখনো মন ভাঙে না, ছেড়ে যায় না, পরিস্থিতি ও লালসা ষড়যন্ত্রের হয় বলিদান। তবে, জিবন আপনার, সিদ্ধান্ত আপনার। ভুল বা অন্যায় করলে সৃষ্টিকর্তা মহানুভব – তিনি বিচার দিবসের বিচারক। হয় ঘৃনা করা বন্ধ করুন, নয় তো ক্ষমা করে দিন। সুখে থাকুন।

যাও তবে ক্ষমা করে দিলাম: প্রতিবেদন মো রুমান মাহমুদ।

 সূত্রঃ অনলাইন সংগ্রহ।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।