ঢাকাWednesday , 16 November 2022
  1. Engineering
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আবহাওয়া ও দূর্যোগ
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন
  9. কবিতা
  10. কুরআন/সূরা
  11. কৃষি
  12. কোভিড-১৯
  13. খেলাধুলা
  14. গনমাধ্যম
  15. জব
বিজ্ঞাপনঃ আপনি স্ববলম্বি হতে চান? ১০০% নিশ্চয়তায় দৈনিক আয় করতে telegram এ যোগাযোগ করুন, +85295063265 @krakenvip01' বা, @kraken_Asst     
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বিএনপি-জামায়াতের ১ কোটি ২৩ লাখ ভুয়া ভোটার, ২ জায়গায় ভোট দেবেন সাকা চৌধুরী!

bd-tjprotidin
November 16, 2022 3:23 pm
Link Copied!

বিএনপি-জামায়াতের ১ কোটি ২৩ লাখ ভুয়া ভোটার, ২ জায়গায় ভোট দেবেন সাকা চৌধুরী!

২০০৭ সালের ২২ জানুয়ারি সাজানো নির্বাচনের মাধ্যমে আবারো ক্ষমতা দখলের জন্য ১ কোটি ২৩ লাভ ভুয়া ভোটার তালিকা প্রস্তুক করেছিল বিএনপি-জাাময়াত সরকার। এমনকি খালেদা জিয়া উপদেষ্টা ও বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীও দুই স্থানে ভোটার হন। চট্টগ্রাম-৪ ফটিকছড়ি এবং চট্টগ্রাম-৭ রাঙ্গুনিয়া দুই আসন থেকে ভোট করার জন্য মনোনয়ন তুলেছিল সে। এরপর তার ডাবল ভোটার হওয়ার তথ্য ফাঁস হয়ে পড়ে। নির্বাচন কমিশনের কর্তকর্তারা এই ঘটনাকে প্রতারণা ও বেআইনি বলে অভিহিত করেন।

২০০৭ সালের ১১ জানুয়ারির প্রথম আলো পত্রিকার এক সংভাদে এই তথ্য জানা যায়। নির্বাচন কমিশনাররা বলেন, একজন ব্যক্তি সর্বোচ্চ পাঁচটি আসন থেকে নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে অংশ নিতে পারেন। কিন্তু তিনি ভোটার হবেন যেকোনো একটি স্থানের। একজন ব্যক্তি দুই জায়গায় ভোটার হতে পারেন না। এটি সাংবিধানিকভাবে অবৈধ। এটি এক ধরণের প্রতারণা।

বিএনপি-জামায়াত নেতাকর্মীরা এভাবেই অনেকে একাধিক স্থানের ভোটার হয়েছেন এবং ভুয়া নাম-পরিচয় দিয়ে প্রায় ১ কোটি ২৩ লাখ ভোটার তালিকা তৈরি করে তারা। কারণ এই ভোটগুলো দলীয় ক্যাডারদের মাধ্যমে কাস্ট করে অবৈধভাবে বিএনপিকে ক্ষমতায় নেওয়ার পরিকল্পনা ছিল তাদের। এজন্য রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহমেদকে অসাংবিধানিকভাবে প্রধান উপদেষ্টার পদে বসায় তারা। এরপর খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের তালিকা অনুযায়ী নির্বাচন পরিচালনার জন্য দলীয় সমর্থনপুষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়োগ দেওয়া হয়।

12.3 million fake voters of BNP-Jamaat, Salahuddin Qader Chowdhury to vote in 2 places!

The BNP-Jamaat government made a list f voters containing 12.3 million fake voters to regain power through the elections held on January 22, 2007. Even Khaleda Zia’s adviser and BNP leader Salahuddin Quader Chowdhury also became a voter in two places. He was listed to vote from Chittagong-4 Fatikchari and Chittagong-7 Rangunia constituencies. After the information of him being a dual voter got leaked, Election Commission officials termed the incident fraudulent and illegal.

A report in Prothom Alo newspaper on January 11, 2007, published this information. The Election Commissioners said that a person might participate as a candidate from a maximum of five constituencies. But he can only be a voter of either of the five constituencies. A person cannot be a voter in more than one constituency. It is constitutionally illegal. It is a form of cheating.

This is how BNP-Jamaat activists became voters in multiple places and forged a voter list with 12.3 million fake names and identities. Because they had planned to take BNP to power illegally by casting these votes through party cadres. This is the reason they appointed President Iajuddin Ahmed as Chief Advisor which was unconstitutional. After that, according to the list of Khaleda Zia and Tariq Rahman, party-supported officials were appointed to conduct the election.

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।